নবীনগরে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র স্থানান্তরের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নবীনগর উপজেলার সাতমোড়া ইউনিয়নের ছোট শিকানিকা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্রটি সড়িয়ে সাতমোড়া স্থানান্তরিত হয়ে যাচ্ছেন এমন গুনঞ্জে ফুসে উঠেছে এলাকাবাসী।১৯৮৫ সালে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্রটি ছোট শিকানিকা গ্রামে প্রতিষ্ঠার পর থেকে ছোট শিকানিকা,বড় শিকানিকা,পদ্মনগর,ভাটার পুকুর পাড়,কাজেল্লা,জগন্নাথপুর,চুওরিয়া,চেচড়া চেলিখলা গ্রামের দরিদ্র অসহায় বাসিন্দারা এখান থেকে জরুরি ওষুধ সহ প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করে যাচ্ছেন।

এরই মধ্যে বিগত কিছুদিন ধরে এলাকায় গুনঞ্জ উঠেছে যে স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি নতুন ভবন সহ সাতমোড়া গ্রামে প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে।এরই বিগত কিছুদিন ধরে এই কেন্দ্রটির সেবার কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।এতে ফুঁসে উঠেছে এলাকার সাধারণ জনগণ।তারই প্রেক্ষিতে এলাকার সর্বদলীয় জনগণ সোমবার বিকালে মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেন।এসময় তারা বলেন বিভিন্ন অজুহাতে ইউনিয়ন পরিষদ ভবনটি তারা সাতমোড়া নিয়ে গেছে।এখন শুরু হয়েছে স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি ছিনিয়ে নেওয়ার।এতো গুলো গ্রামের বাসিন্দাদের উপেক্ষা করে সাতমোড়া এই কেন্দ্রটিকে নিয়ে যেতে দেওয়া হবে না।প্রয়োজনে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে, রাস্তাঘাট বন্ধ করে দেওয়া হবে।

তবু ছোট শিকানিকা থেকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি অন্য কোন স্থানে নিয়ে যেতে দেওয়া হবে না।আমরা জীবন বাজি রেখে হলেও এই অপ শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করে যাব।তারা যদি নতুন করে একটি হাসপাতাল বা স্বাস্থ্য কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করতে চায় তবে করুক আমাদের কোন আপত্তি নেই।তবে ছোট শিকানিকা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি বন্ধ বা বিলুপ্তি করে নয়।উল্লেখ্য সাতমোড়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নিয়েও অনুরূপ আরচণ এসকল গ্রামের বাসিন্দাদের সাথে করা হয়েছে বলেও তারা জানান।বর্তমান ইউনিয়ন পরিষদ ভবনটি ইউনিয়নের চুওরিয়ায় অবস্থিত হলেও নতুন ভবন করা হবে সাতমোড়ায়।আদালত কর্তৃক নির্ধারিত হয় বিষয়টি।এবার যদি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটির বেলায় এমন খেলা শুরু হয় তবে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন বক্তারা।