পথে পথে মাইকিং করছেন এমপি

‘আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হোন, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হবে না। অপরিষ্কার হাতে চোখ, মুখ ও নাকে হাত দিবেন না।’ করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সবাইকে সচেতন করতে নিজে মাইকিং করে এই বার্তা দিচ্ছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের সংসদ সদস্য বি.এম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম। নিজের নির্বাচনী আসনের প্রত্যন্ত বিভিন্ন এলাকার পথে পথে ঘুরে মানুষকে সচেতন করার পাশাপাশি কর্মহীন ও হতদরিদ্রদের দিচ্ছেন খাদ্য সহায়তা।

সারাবিশ্বের মানুষের কাছেই এখন আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস। বৈশ্বিক এই দুর্যোগে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন শ্রমজীবীরা। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে অনেক জনপ্রতিনিধিই মাঠে না থাকলেও নির্বাচনী এলাকায় ছুটে বেড়াচ্ছেন সাংসদ সংগ্রাম। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে মাইকিং করে সবাইকে অনুরোধ করছেন ঘরে থাকার। পাশাপাশি বিদেশফেরতদেরও অনুরোধ জানাচ্ছেন ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থেকে পরিবার ও দেশকে নিরাপদ রাখার।

হাওর বেষ্টিত নাসিরনগর উপজেলার মানুষ একজন সাংসদের এমন ভূমিকা আগে দেখেননি। ফলে আগ্রহ নিয়েই সাংসদের মুখে করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতার বার্তা শুনছেন তারা।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত নাসিরনগর উপজেলার ধরমণ্ডল, চাপরতলা, ফান্দাউক ও ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে কর্মহীন ও হতদরিদ্র পরিবারগুলোকে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেন সাংসদ সংগ্রাম।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের সংসদ সদস্য বি.এম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম বলেন, সুখে-দুঃখে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মানুষের ভোট নিয়েছি। এই দুর্যোগে তাদের পাশে থাকা আমার নৈতিক দায়িত্ব। আমি সেই দায়িত্বটুকুই পালন করছি। আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে কেউ না খেয়ে মরবে না। আমরা সবার বাড়ি-বাড়ি খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেবো। সবাই মিলে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে জয়ী হব।